১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ রাত ২:০২ শুক্রবার
  1. আন্তর্জাতিক
  2. কমলনগর
  3. কিশোরগঞ্জ
  4. কিশোরগঞ্জ জেলা
  5. খেলাধুলা
  6. চট্টগ্রাম
  7. জাতীয়
  8. তথ্য-প্রযুক্তি
  9. নারী ও শিশু
  10. নোয়াখালি
  11. ফেনী
  12. বিনোদন
  13. ভোলা জেলা
  14. ময়মনসিংহ
  15. রাজনীতি

উপ-সম্পাদকীয়: প্রবীণদের ভালোবাসুন, যত্ন নিন

প্রতিবেদক
মোহাম্মদ রাসেল পাটওয়ারী
ডিসেম্বর ২১, ২০২৩ ৬:০৪ অপরাহ্ণ

রাকিব হোসেন মিলন: যে মানুষটির হাত ধরে পৃথিবীর আলো, রং রূপ দেখতে শিখলাম, চলতে, বলতে শিখলাম। যিনি নিজের সুখ বিসর্জন দিয়ে আমাকে সুখে রাখলেন, জীবনের প্রতিটি ধাপেই শক্ত ঢাল হয়ে আমার পাশে দাঁড়িয়েছেন। সেই তিনিই যখন কাজে অক্ষম, বয়সের ভারে ন্যূব্জ,অসুস্থ হয়ে পড়েন, চলার শক্তি হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়েন। তখন সংসারে অবহেলিত যেন তিনিই। আমাদের যেন একদন্ড অবসর নেই তাদের সময় দেয়ার।

আমরা কি চিন্তা করতে পারি কতোটা অকৃতজ্ঞ আমরা! যখন আমাকেই সবচেয়ে বেশি দরকার তাদের, ঠিক সে সময় আমিই যেন উদাসীন তাদের প্রতি। সময় দেয়ার মতো সময় নেই আমার হাতে। সামান্য সর্দি জ্বরেও অস্থির হয়ে যে মানুষগুলো রোদ, ঝড়, বৃষ্টির পরোয়া না করে আমাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেছেন, সেই তাদের অসুস্থতায় পাশে পায় না আমাকে। অবশ্য সব পরিবারের দৃশ্য এমন নয়। হাতে গোনা অল্প কিছু পরিবারে এখনো পারিবারিক বন্ধন মজবুত আছে। তারা সুখে-দুঃখে পরস্পরের পাশে থাকেন সবসময় ।

একটি শিশু -কিশোরের প্রতি যে যত্ন নিতে হয় অনেকটা সেরকমই যত্ন নিতে হয় আমাদের প্রবীণদের প্রতিও। কেননা এই বয়সে তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। অনেকের ভুলে যাওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। ফলে মেডিসিন নিতে অথবা খাবার খেতে ভুলে যান। সে কারণে পরিবারের সদস্যদের খেয়াল রাখতে হয় তাদের প্রতি। আর শীতকালে তো অবশ্যই আরো বাড়তি মনোযোগ দিতে হবে তাদের প্রতি। অজু, গোসলের পানি যেন ঠান্ডা না হয়। গরম কাপড় ঠিক মতো গায়ে আছে কিনা, বাইরে যাওয়ার সময় সঙ্গে গরম কাপড় নিয়েছেন কিনা এসবের দিকে নজর রাখতে হবে, যাতে করে ঠান্ডাজনিত অসুখ না লাগে। আর তিনি যদি সঙ্গীহীন হন তো অবশ্যই একটু বেশি খেয়াল রাখা উচিত ।

আমরা যারা নবীন আছি তাদের বুদ্ধি আর শক্তি এবং প্রবীণের অভিজ্ঞতা ও পরামর্শকে যদি আমরা কাজে লাগাতে পারতাম তবে এ দুয়ের সমন্বয়ে অবশ্যই সবকাজে সফল হতে পারতাম । কিন্তু না, দিনকে দিন কেমন যেন হয়ে যাচ্ছি আমরা। তাদের প্রতি একটু যত্নশীল হওয়া, প্রতিদিন কিছুটা সময় দেয়া আমাদের কাছে যেন বেশি ভারী মনে হয়। অথচ এমনটি হওয়া অনুচিত। আজকে আমরা যারা তাগড়া যুবক, কালের পরিক্রমায় একদিন আমরাও প্রবীণ হবো। কাজেই সাবধান ! অন্যের অবহেলা, অসম্মানে যদি আমি কষ্ট পাই তবে কাউকে আঘাত দিয়ে কথা বলা, অসম্মান করা , বড়দের সাথে কষ্টদায়ক আচরণ করা থেকে নিজেকে যেন বিরত রাখি। পরিবারের শিশুদের যেন তাদের দাদা-দাদী, নানা-নানী, চাচা খালা, ফুফু এবং প্রবীণদের সাথে মিশতে দিই। সবকিছু বই পড়ে শেখা যায় না। আচার-আচরণ, ভদ্রতা এসব মানুষ ভালো পারিবারিক পরিবেশ, ভালো প্যারেন্টিং ও সিনিয়রদের দেখেই শেখে বেশি।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20

সর্বশেষ - কিশোরগঞ্জ