১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ সন্ধ্যা ৭:৫১ শনিবার
  1. আন্তর্জাতিক
  2. কমলনগর
  3. কিশোরগঞ্জ
  4. কিশোরগঞ্জ জেলা
  5. খেলাধুলা
  6. চট্টগ্রাম
  7. জাতীয়
  8. তথ্য-প্রযুক্তি
  9. নারী ও শিশু
  10. নোয়াখালি
  11. ফেনী
  12. বিনোদন
  13. ভোলা জেলা
  14. ময়মনসিংহ
  15. রাজনীতি

পাকুন্দিয়ায় উপজেলা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ

প্রতিবেদক
মোহাম্মদ রাসেল পাটওয়ারী
এপ্রিল ২৩, ২০২৪ ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

মো. মুঞ্জুরুল হক মুঞ্জু, পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি: পারিবারিক ও ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় আসন্ন উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীতা থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ও জেলা শ্রমিক লীগের উপদেষ্টা আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ।

সোমবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার নারান্দী ইউনিয়নের সনমানিয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি এ ঘোষণা দেন। এর আগে গত ১৫ এপ্রিল মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ বলেন, আমি ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের একজন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলাম। বর্তমানে আমার ব্যক্তিগত, শারীরিক, পারিবারিক ও ব্যবসায়িক সমস্যার কারণে এ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছি। এ সময় তিরি তাঁর কর্মিদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি আপনাদের পাশে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব।

এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুল কাদির, নূরুল্লাহ মাহমুদ, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি নাজমুল হক দেওয়ান, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি সাহারা আক্তার সাথী, নারান্দী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোসলেহ উদ্দিন, সাবেক চেয়াম্যান মুঞ্জুরুল হক হীরা, সাবেক ছাত্রনেতা ইকবাল আহমেদ রিপন, পুলেরঘাট বাজার বণিক সমিতির সাবেক সভাপতি খাইরুল আলম খান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ি মুখলেছুর রহমান, নারান্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হুমায়ূন কবির, ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম মানিক ও শহীদ মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের আরেক প্রার্থী মো. আতাউর রহমান সোহেল তাঁর প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন বলে জানা গেছে। তিনি উপজেলার হাজী জাফর আলী কলেজের সহকারী অধ্যাপক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের একজন কর্মি।

সোমবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে তার প্রত্যাহারপত্র জমা দেন।

এব্যাপারে আতাউর রহমান সোহেল বলেন, পারিবারিক ও স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম।

অপরদিকে গত ২০ এপ্রিল এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ও সাবেক র্ভিপি মো. কামাল উদ্দিন। কেন্দ্রের নির্দেশে এ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান বলে তিনি সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ছিল ১৭ এপ্রিল। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২২ এপ্রিল। প্রতীক বরাদ্দ ২৩ এপ্রিল এবং ভোটগ্রহন ৮ মে।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20

সর্বশেষ - কমলনগর