Sunday, November 27, 2022

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে আলোচনার শীর্ষে সফিকুল ইসলাম

আবু তাহের, রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: আসন্ন আগামী ২১ নভেম্বর লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন। গত ২০১৫ইং সালের মার্চে সম্মেলন শেষে গোলাম ফারুক পিংকু সভাপতি ও এ্যাড. নূর উদ্দিন চৌধুরী নয়নকে সাধারণ সম্পাদক করে একটি দ্বি-বার্ষিক কমিটি হলেও অদ্যবদি পর্যন্ত লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের আর কোন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি। ২১ নভেম্বর সকালে সম্মেলন উদ্বাধন করবেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি।

এই সম্মেলনকে ঘিরে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন প্রবীন রাজনীতিবিদ তৃনমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের আস্থাভাজন সফিকুল ইসলাম। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের লক্ষ্মীপুর জেলা কমিটির বর্তমানসহ একটানা ৩বারের ১ম সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বেশ কয়েক মাস থেকে নেতৃাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুকে সফিকুল ইসলামকে সভাপতি প্রার্থী হিসেবে দেখতে চেয়ে শতশত নেতাকর্মী স্টাটার্স দিতে দেখা গেছে।

সফিকুল ইসলাম ১৯৭৩-১৯৭৪ইং সালে চট্ট্রগ্রাম সরকারী কমার্স কলেজ থেকে জিএস নির্বাচিত হয়েছিলেন। এছাড়াও ১৯৮৬ থেকে ১৯৯০ইং পর্যন্ত রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করেছেন। উপজেলা চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময় উনার সততা ও নীতিনৈতিকতা জনসেবার কর্মকান্ড গুলো আজও ইতিহাস হয়ে রয়েছেন। একসময় এই নন্দিত রাজনীতিবিদ ১৯৯৬ইং সাল থেকে ২০০৩ইং সাল পর্যন্ত রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

সভাপতি হওয়ার পর তিনি একসময় রামগঞ্জে আওয়ামী লীগের জামানত হারানোর এই আসনে ১৪/১৫ হাজার মানুষকে আওয়ামী লীগে যোগদান করিয়ে দলের সার্বিক কার্যক্রমকে চাঙ্গা করে তোলেন। এরই ধারাবাহিকতায় রামগঞ্জসহ, লক্ষ্মীপুর, রামগঞ্জ, রায়পুর, রামগতি, কমলনগর সহ জেলা আওয়ারমী লীগের তৃনমূলের কর্মীদের সাথে নিয়ে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে নিজেকে সমসময় সম্পৃক্ত রেখেছেন। তার রাজনৈতিক দুরদর্শিতার কারণে পুরো জেলা আওয়ামীলীগ এখন সূসংগঠিত।

তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৬ইং সালে (লক্ষ্মীপুর-১ রামগঞ্জ) আসন থেকে নৌকার কান্ডারী হিসেবে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। ২০০২সালে জামায়াত বিএনপির ৪দলীয় জোট সরকার ক্ষমতাকালীন সময় সফিকুল ইসলামের উপর দপায় দপায় হামলা চালিয়ে তার ৩টি গাড়ি ভাংচুর করে জ্বালিয়ে দেয় এবং ২০০৪ইং সালে তাকে অপহরণ করে লাকসাম রেলষ্টেশানে নিয়ে হাত পা বেঁধে রেখে তার সাথে থাকা প্রিমিও গাড়ীটি নিয়ে যায়। পরে ওখানকার নেতাকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে ভর্তি করার ৫দিন পর জ্ঞান ফিরে আসে। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক বর্তমান সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের হাসপাতালে গিয়ে তার চিকিৎসার সার্বিক খোজখবর নেন।

একই বছর ২০০৪ইং সালে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সফিকুল ইসলাম সভাপতি প্রার্থী হন। সেদিন ৯০ভাগ নেতাকর্মীরা তার পক্ষে অবস্থান নিলেও অজ্ঞাত কারনে উনাকে সভাপতি করা হয়নি। ওইদিন তাকে সভাপতি না করায় হাজার হাজার নেতাকর্মীরা ক্ষোভে লক্ষীপুর সার্কিট হাউজে ভাংচুর চালায়। এছাড়াও সফিকুল ইসলাম ২১আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় আহতদের চিকিৎসার জন্য অর্থিক সহযোগীতা প্রদান করেন। ২০০৬ইং সালের ডিসেম্বরে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি মরহুম হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদকে পল্টনের ১৪দলের মহাজোটের মহাসমাবেশে নেত্রীর এপিএস আলাউদ্দিন নাছিম সহ নেত্রীর নির্দেশে জীবনের ঝুকি নিয়ে এরশাদকে সমাবেশস্থলে পৌছানোর গুরুদায়িত্ব পালন করেছেন।

রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ মানেই সফিকুল ইসলাম। তার হাত ধরেই হাজার হাজার কর্মীর সৃষ্টি হয়েছে। প্রানের সংগঠন আওয়ামী লীগ দীর্ঘ ১৫বছর ক্ষমতায় থাকার কারণে অনেক নেতা কর্মী বহু গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে অনেক সুযোগ সুবিদা নিয়েছেন।

কিন্তু প্রবীন এই আওয়ামী লীগ নেতা সফিকুল ইমলাম দলের দুঃসময়ে অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। এজন্য সকল কিছু বিবেচানায় রেখে সম্মেলনে সফিকুল ইসলামকে সভাপতি হিসেবে মূল্যায়ন করার জন্য কেন্দ্রীয় নেতাদের সুদৃষ্টি কামনা করছি। এছাড়া গত ২০১৮ইং সনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী ড. আনোয়ার হোসেন খান বিপুল ভোটে বিজয় লাভ করার পেছনে সফিকুল ইসলাম গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করেন।

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী সফিকুল ইসলাম জানান, একাধারে ৩বার জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছি। দল যদি আমাকে সভাপতির দায়িত্ব দেয় আমি বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবো লক্ষ্মীপুর জেলার সবগুলো উপজেলাতে আওয়ামী লীগকে উজ্জবিত করে দলের দুর্ঘ গড়ে তুলবো।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
সর্বশেষ সংবাদ