২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ দুপুর ২:১৩ বুধবার
  1. আন্তর্জাতিক
  2. কমলনগর
  3. কিশোরগঞ্জ
  4. কিশোরগঞ্জ জেলা
  5. খেলাধুলা
  6. চট্টগ্রাম
  7. জাতীয়
  8. তথ্য-প্রযুক্তি
  9. নারী ও শিশু
  10. নোয়াখালি
  11. ফেনী
  12. বিনোদন
  13. ভোলা জেলা
  14. ময়মনসিংহ
  15. রাজনীতি

শিক্ষার্থীদের স্কুলে ফেরা নিয়ে শঙ্কা !

প্রতিবেদক
মোহাম্মদ রাসেল পাটওয়ারী
সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১ ৩:১৭ অপরাহ্ণ

মো. নাঈমুজ্জামান নাঈম, কুলিয়ারচর (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি: কোভিড-১৯ এর কারণে দীর্ঘদিন যাবৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার ছয়সূতী ইউনিয়নের পাঁচাটিয়া হাওড়ে অবস্থিত ধূপাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাতায়াতের কোনো রাস্তা না থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। তাই দীর্ঘদিন পর স্কুল খুললেও শিক্ষার্থীদের স্কুলে ফেরা নিয়ে শঙ্কা !

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ২০১৩-১৪ সালে বিদ্যালয় বিহীন এলাকায় ১৫০০ বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের আওতায় ধূপাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপিত হয়। ২০১৭ সালে স্কুলের যাত্রা শুরু করে বর্তমানে সব শ্রেণি মিলিয়ে শিক্ষার্থী সংখ্যা ১৪০ জন। কিন্তু হাওরে অবস্থিত বিদ্যালয়টিতে রাস্তা না থাকায় শুকনো মৌসুমেও যেমন সমস্যা আর বর্ষাকালে বিদ্যালয়ের চার পাশেই বর্ষার পানিতে টইটুম্বুর থাকায় শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য ছোট ডিঙি নৌকায় একমাত্র ভরসা। এতে মাঝে মধ্যেই ঘটে দুর্ঘটনা। ছোট ডিঙি নৌকা দিয়ে পারাপার করতে গিয়ে শিক্ষার্থীরা অনেক সময় পানিতে পড়ে গিয়ে কাপড়, বই-খাতা ভিজিয়ে ফেলে, এতে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ারও শঙ্কা থাকে।

বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী আপন ও হাসি বলেন, রাস্তা না থাকায় বর্ষাকালে আমাদের নৌকায় করে স্কুলে আসতে হয়। অনেক সময় নৌকা থেকে পড়ে গিযে বই-খাতা সব ভিজে যায়। তারা বলেন একটা রাস্তা নির্মাণ হলে স্কুলে আসতে অনেক সুবিধা হতো ।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জসিম উদ্দিন বলেন রাস্তা না থাকায় শুকনো মৌসুম ও বর্ষাকালে অনেক ভোগান্তি হয়, স্কুলে ছাত্র-ছাত্রীরা আসতে চায় না। অভিভাবকরাও বাচ্চাদের দিতে চান না। রাস্তা না থাকার কারণে বিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়নও হচ্ছে না। তিনি বলেন, বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বার বারই অবগত করা হচ্ছে ।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জসিম উদ্দিন লিটন বলেন, গ্রামীণ পাকাসড়ক থেকে বিদ্যালয় পর্যন্ত প্রায় আধা কিলোমিটার রাস্তা না থাকায় ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম। রাস্তা নির্মাণের জন্য স্থানীয় এমপির মাধ্যমে একটি প্রকল্প হাতে পেলেও জায়গা সংকটের কারণে রাস্তার কাজ বিলম্বিত হচ্ছে।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20

সর্বশেষ - কমলনগর