Wednesday, February 08, 2023

রামগতিতে শিক্ষকদের অবহেলায় ৯ শিক্ষার্থী পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত

মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন, রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে দাখিল পরীক্ষার হল সুপার আলেকজান্ডার কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. তৈয়ব আলী ও শিক্ষকদের অবহেলায় এবং ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে দাখিল পরীক্ষা দিতে পারেনি ৯ শিক্ষার্থী।

জানা যায়, উপজেলার চর আলেকজান্ডার ইউনিয়নের চর আবদুল্যাহ মাদ্রাসাতুল জমিয়াতুল ইসলামিয়া ফাযিল ডিগ্রি মাদ্রাসার দাখিলের ৯ শিক্ষার্থী বৃহস্পতিবার পরীক্ষা ছিল জীব বিজ্ঞানের। শিক্ষার্থীরা ফরম পুরনের সময় কৃষি বিজ্ঞানকে ঐচ্ছিক হিসেবে নেয়। কিন্তু প্রবেশ পত্রে ভুল বশত: জীব বিজ্ঞান ঐচ্ছিক হিসেবে চলে আসে। মাদ্রাসার জীব বিজ্ঞানের শিক্ষক রবি শংকর দাস তাদের বলেন জীব বিজ্ঞান ঐচ্ছিক বিষয় পরীক্ষা না দিলেও চলবে। পরীক্ষা শুরুর পর তারা জানতে পারে জীব বিজ্ঞান তাদের মূল পাঠ্য বিষয়। এরপর তাড়াহুড়ো করে শিক্ষার্থীরা হলে আসতে ২০ মিনিট বিলম্ব হয়। বিলম্বের কারণে তাদের পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে দেয়নি হল সুপার আলেকজান্ডার কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. তৈয়ব আলী।

চর আবদুল্যাহ মাদ্রাসাতুল জমিয়াতুল ইসলামিয়া মাদ্রাসার তাজরিন আক্তার নিহা, নুসরাত জাহান ইতি, আকিব হোসেন, রোমানা আক্তার, মো. জিয়া উদ্দিন শুভ, আরমান হোসেন অনিক, শরিফুল ইসলাম, ইব্রাহিম সহ ৯ পরীক্ষার্থী জানায়, হল সুপারের সাথে তাদের মাদ্রাসার অধ্যক্ষের ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের কারণে সম্পূর্ণ উদেশ্য প্রণোদিত ভাবে তাদের পরীক্ষা দিতে দেয়নি হল সুপার তৈয়ব আলী। তারা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে অবগত করেছে বলেও জানায়।

এ বিষয়ে হল সুপার আলেকজান্ডার কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. তৈয়ব আলী জানান, তারা বিলম্বে আসার কারণে বোর্ড কর্তৃক প্রদেয় নীতিমালা অনুসারে তাদের পরীক্ষা নেয়ার সুযোগ ছিল না। আমার সাথে ব্যক্তিগত দ্বন্দ্ব থাকতে পারে সেটা পরীক্ষার্থীদের সাথে নয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম শান্তুনু চৌধুরী বলেন, আমি বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। এ ক্ষেত্রে আমার সক্ষমতার মধ্যে যা করার আছে আমি সর্বাত্নক চেষ্টা করবো যাতে এ ৯ শিক্ষার্থীর জীবন থেকে ১টি বছর ঝরে না যায়।

ভুক্তভোগী অভিবাবকরা দোষীদের শাস্তির দাবি জানায়।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
সর্বশেষ সংবাদ