Tuesday, February 07, 2023

উপকূলে সাকার ফিসে সয়লাব হুমকিতে দেশীয় প্রজাতির মাছ

মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন, রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীর বুকের মাঝে পলি বিদৌত অঞ্চল উপকুলীয় রামগতির খাল বিল আদর্শ মৎস্য চাষীর পুকুরে উম্মুক্ত জলাশয় এবং মেঘনা নদীতে আধিক্য দেখা যাচ্ছে এ্যাকুরিয়ামের শোভাবর্ধণকারী বিদেশী প্রজাতির সাকার মাছ। যার পুরো নাম সাকার মাউথ ক্যাটফিস।

যে কোন পরিবেশে অভিযোজিত হয়ে দ্রুত বংশ বিস্তারকারী মাছটির এখন হরহামেশাই দেখা মিলছে বদ্ধ কিংবা মুক্ত জলাশয়ে, খাল বিল ডোবা নালায় এমনকি আদর্শ মৎস্য চাষীর পুকুরে। মাছটি খেতে সুস্বাধু না হওয়ায় সাধারণত কেউ খায় না এবং বাজারে নেই এর কোন চাহিদা।

জানা যায়, সাকার জলজ পোকামাকড়, শ্যাওলা, ছোট মাছ, মাছের ডিম, পোনা খায়। এদের ধারালো পাখনার আঘাতে অন্য মাছের দেহে ক্ষত তৈরি হয়ে পচন ধরে পরে মারা যায়। এদের সাথে খাবারের প্রতিযোগীতায় টিকতে না পেরে বিলুপ্তির পথে দেশীয় প্রজাতির মাছ।

মৎস্য দপ্তর এ সাকার মাছের বিস্তার রোধে সভা সমাবেশ সেমিনার লিফলেট বিলি সহ নানান ভাবে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।
মৎস্য চাষী নেছার উদ্দিন সহ অনেকে অভিযাগ করেন, মাছটি আমাদের পুকুরে কিভাবে আসলো বুঝতে পারছিনা। এ মাছটির কারণে মাছ চাষে কাঙ্খিত উৎপাদন পাওয়া যায় না। ফলে চাষীরা পড়ছে লোকসানে।

সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন জানান, প্রচুর পরিমানে খাবার ভক্ষণ করে লম্বায় ১৬ থেকে ১৮ ইঞ্চি লম্বা হয়ে খাবার ছাড়াই ডাঙ্গায় পুরো দুই দিন বেঁচে থাকতে পারে। মাছটি খেলে কোন স্বাস্থ্যঝুঁকি আছে কিনা এখনো সেরকম কোন গবেষণা হয়নি।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
সর্বশেষ সংবাদ