Sunday, November 27, 2022

রামগতি কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তৈয়ব আলীর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন, রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রামগতির আলেকজান্ডার কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তৈয়ব আলীর বিরুদ্ধে নানান অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, আলেকজান্ডার কামিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক ছিলেন তৈয়ব আলী। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ওমর ফারুক অপসারিত হওয়ার পর তিনি ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পান। দায়িত্ব পাওয়ার তিনি বেপরোয়া হয়ে উঠেন। জড়িয়ে পড়েন নানা অনিয়ম দুর্নীতিতে। পরীক্ষার্থী বিদেশে অথচ তার পরীক্ষা দেয়ার ব্যবস্থা করেন অন্য জনকে দিয়ে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঐ প্রক্সি পরীক্ষার্থীকে আটক করে ৬ মাসের সাজা দেন। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়, ফুল বাগান সহ নানা ভূতুড়ে প্রকল্প দেখিয়ে স্ব-নামে বেনামে সরকারী অর্থের অপচয় করেন তিনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকটি মাদ্রাসার অধ্যক্ষ জানান, পরীক্ষার্থীদের প্রক্সি পরীক্ষা দেয়া, স্বেচ্চাচারিতা, অনিয়ম, দুর্নীতি ও চর আবদুল্যাহ মাদ্রাসা অধ্যক্ষের সাথে ব্যক্তিগত দ্বন্ধে ২০২২ সালের দাখিল পরীক্ষার ৭শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা বঞ্চিত করে যার ফলে কেন্দ্র সচিব থেকে বহিস্কার হন। এরপরও বে-আইনী ভাবে দখিল-২০২২ পরীক্ষার হলে প্রবেশ, দাখিল পরীক্ষার ব্যবহারিক উত্তরপত্র মূল্যায়ন ফি (অভ্যন্তরীণ ও বহিরাগত পরীক্ষকদের জন্য) প্রতি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১০টাকা নেয়ার মাদ্রাসা শিক্ষ বোর্ডের আদেশ থাকলেও তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করে আদায় করেছেন পাঁচ গুন বেশী টাকা। অথচ এ টাকা আদায় করার কথা কেন্দ্র সচিব। তৈয়ব আলী সম্পূর্ণ বে-আইনী ভাবে অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক আবু বকর ছিদ্দিককে দিয়ে বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার ডিউটি করান এবং তাকে অন্যায় ভাবে সম্মানী ভাতা পরিশোধ করেন।

পরীক্ষার্থীদের প্রক্সি পরীক্ষা দেয়া, স্বেচ্চাচারিতা, অনিয়ম, দুর্নীতির বিষয়ে আলেকজান্ডার কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তৈয়ব আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি উত্তেজিত হয়ে বলেন, এখন ব্যস্ত আছি পরে আসেন।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম শান্তুনু চৌধুরী জানান, সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
সর্বশেষ সংবাদ