১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ রাত ২:১৫ শুক্রবার
  1. আন্তর্জাতিক
  2. কমলনগর
  3. কিশোরগঞ্জ
  4. কিশোরগঞ্জ জেলা
  5. খেলাধুলা
  6. চট্টগ্রাম
  7. জাতীয়
  8. তথ্য-প্রযুক্তি
  9. নারী ও শিশু
  10. নোয়াখালি
  11. ফেনী
  12. বিনোদন
  13. ভোলা জেলা
  14. ময়মনসিংহ
  15. রাজনীতি

রামগতি উপজেলা আ’লীগ সহ সভাপতি সারুর বক্তব্যে তোলপাড়

প্রতিবেদক
মোহাম্মদ রাসেল পাটওয়ারী
মে ১৪, ২০২৪ ১১:৩৪ অপরাহ্ণ

মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন, রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ড: আশ্রাফ আলী চৌধুরী সারুর দলীয় সভায় দেয়া এক বক্তব্যে তোলপাড় চলছে পুরো জেলায়।

সোমবার (১৩ মে) সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের ঘোষিত কমিটির সভায় অনেকের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ড: আশ্রাফ আলী চৌধুরী সারু। তার দেয়া বক্তব্যটি মূহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়।

তিনি তার বিতর্কিত ও হাস্যকর বক্তব্যে বলেন, পৌর নির্বাচনে এম মেজবাহ উদ্দিনকে বিজয়ী করতে এক হাজার মানুষকে তাবু টানিয়ে দুইদিন ভাত খাইয়েছেন সারু। পৌর নির্বাচনে প্রায় ১৩ লক্ষ টাকা ব্যয় করেন। এরপর সংসদ নির্বাচনে দাঁড়ানোর জন্য বিভিন্ন সংস্থা থেকে তাকে চাপ দেয়া হলেও তিনি তা নাকচ করে দেন। তিনি বিভিন্ন সময়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু’এমপি, সাধারণ সম্পাদক এড. নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন’ এমপি, ডিসি, ইউএনও, ওসি সহ প্রশাসনের বিভিন্ন লোককে লক্ষ লক্ষ টাকা সহায়তা করেন এবং উপঢৌকন দেন। করোনকালীন সময়ে প্রশাসনকে উপকরণ সহায়তা সহ নগদ টাকা দিয়েছেন।

তিনি বর্তমান সাংসদ আলহাজ মোহাম্মদ আবদুল্যাহ আল মামুন’এমপির নির্বাচনকালীন বিপুল পরিমাণের টাকা ব্যয় করেন। এমপি ও তার পরিবারের লোকজন সম্পর্কে বেফাঁস মন্তব্য করেন। ড: সারু বলেন, এমপি তার পরিবারের লোকজনকে টাকার মেশিন হিসেবে ব্যবহার করেন এবং তাদের দিয়ে এলাকায় সন্ত্রাস নৈরাজ্যকর পরিবেশের তৈরি করেন।

উপজেলা নির্বাচনে ড: সারু ভোট করেন রোকেয়া আজাদের আনারস প্রতিকের। সেখানেও তিনি বিপুল পরিমাণের টাকা দান অনুদান করেন বলে বক্তব্যে উল্লেখ করেন। এছাড়া তিনি নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরাফ উদ্দিন আজাদ সোহেল ও তার বড় বোন উপজেলা আওয়ামী লীগের ঘোষিত কমিটির সহ সভাপতি নাহিদ ফরিদা মুনমুনকে বিএনপি নেতা বলে উল্লেখ করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান শরাফ উদ্দিন আজাদ সোহেল কোন এক সময়ে সারুর বাড়ীর পুকুর থেকে মাছ চুরি করেছে এমন হাস্যকর মন্তব্য করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ঘোষিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহেদ, সিনিয়র সহ সভাপতি আবুল কাশেম নিজাম, সহ সভাপতি একরামুল কবির টিটু, সদস্য ও পৌর মেয়র এম মেজবাহ উদ্দিন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সদস্য সাহেদ আলী মনু সহ অনেকে।

এমন অনাকাঙ্খিত অনভিপ্রেত ও হাস্যকর বক্তব্য দেয়া প্রসঙ্গে বলেন ড: সারু বলেন, আমি যা বলেছি সবই সত্য। আমার বক্তব্যই আমার উত্তর।

সংক্ষুব্দরা জানায়, ড: সারু দলীয় সভায় এ ধরনের বক্তব্য দেয়া উচিত হয়নি। যার ফলে অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্ম হতে পারে।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20

সর্বশেষ - কিশোরগঞ্জ

আপনার জন্য নির্বাচিত